১২:৫৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪

সুদান প্রবাসীদের ফেরতের বিষয়টি পরিষ্কার করলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৮:০১:০১ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ এপ্রিল ২০২৩
  • / ৫১ বার পড়া হয়েছে

সুদানের সেনাবাহিনী ও আধা-সামরিক বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষ চলছে। সংঘর্ষ ক্রমে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। এতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের অফিস এবং বাসভবনও বাদ যায়নি।

অবস্থার অবনতি হওয়ায় বাংলাদেশ সরকার সুদানে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া শুরু করেছে। বর্তমানে দেশটিতে ১৫শ’ বাংলাদেশি আটকা পড়েছেন। এদের মধ্যে প্রায় ৭০০ বাংলাদেশি দেশে আসার জন্য ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। এমন অবস্থায় সরকার তাদের ফিরিয়ে আনতে ব্যবস্থা নিয়েছে।

আগামী ৩ অথবা ৪ মের মধ্যে আগ্রহীদের পোর্ট সুদান থেকে জেদ্দায় নেওয়া সম্ভব হবে বলে আশা করেছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম। তিনি বলেন, আমরা আশা করছি, ২ অথবা ৩ মে প্রথম দফায় তালিকাভুক্ত ৭০০ জনকে পোর্ট সুদানে নিতে পারবো। সেখান থেকে ৩ অথবা ৪ মে তারা জাহাজে করে জেদ্দায় পৌঁছাবেন। সেখানে তাদের থাকার জন্য হোটেলের ব্যবস্থা করেছে সৌদি সরকার।

এর পরেই মদিনায় যাওয়া বিমানের ফ্লাইট ব্যবহার করে তাদের দেশে ফিরিয়ে আনা হবে।রোববার (৩০ এপ্রিল) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সুদানে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের দেশে ফেরানোর অগ্রগতি নিয়ে এক সমন্বয় সভা শেষে এমন পরিকল্পনার কথা জানান পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

সুদান প্রবাসীদের ফেরতের বিষয়টি পরিষ্কার করলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

আপডেট সময় ০৮:০১:০১ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩০ এপ্রিল ২০২৩

সুদানের সেনাবাহিনী ও আধা-সামরিক বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষ চলছে। সংঘর্ষ ক্রমে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। এতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের অফিস এবং বাসভবনও বাদ যায়নি।

অবস্থার অবনতি হওয়ায় বাংলাদেশ সরকার সুদানে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া শুরু করেছে। বর্তমানে দেশটিতে ১৫শ’ বাংলাদেশি আটকা পড়েছেন। এদের মধ্যে প্রায় ৭০০ বাংলাদেশি দেশে আসার জন্য ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। এমন অবস্থায় সরকার তাদের ফিরিয়ে আনতে ব্যবস্থা নিয়েছে।

আগামী ৩ অথবা ৪ মের মধ্যে আগ্রহীদের পোর্ট সুদান থেকে জেদ্দায় নেওয়া সম্ভব হবে বলে আশা করেছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম। তিনি বলেন, আমরা আশা করছি, ২ অথবা ৩ মে প্রথম দফায় তালিকাভুক্ত ৭০০ জনকে পোর্ট সুদানে নিতে পারবো। সেখান থেকে ৩ অথবা ৪ মে তারা জাহাজে করে জেদ্দায় পৌঁছাবেন। সেখানে তাদের থাকার জন্য হোটেলের ব্যবস্থা করেছে সৌদি সরকার।

এর পরেই মদিনায় যাওয়া বিমানের ফ্লাইট ব্যবহার করে তাদের দেশে ফিরিয়ে আনা হবে।রোববার (৩০ এপ্রিল) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সুদানে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের দেশে ফেরানোর অগ্রগতি নিয়ে এক সমন্বয় সভা শেষে এমন পরিকল্পনার কথা জানান পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী।