০৮:৩৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪

হত্যা মামলায় কৃষক লীগ নেতাসহ ৮ জনের যাবজ্জীবন

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ০৩:৩০:০৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
  • / ৭৬ বার পড়া হয়েছে

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার ধলা গ্রামের কৃষক এনামুল হক ওরফে নইলো হত্যা মামলায় কৃষক লীগের নেতাসহ আটজনের প্রত্যেকের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার (২৮ ফেরবুয়ারি) দুপুরে মেহেরপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিজ্ঞ বিচারক শহিদুল্লাহ এ রায় দেন। এ সময় আসামিরা উপস্থিত ছিলেন। মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি (পিপি) পল্লব ভট্টাচার্য ও আসামি পক্ষের কৌঁসুলি ছিলেন একেএম শফিকুল আলম।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, ধলা গ্রামের ছইফতুল্লাহর ছেলে আতিয়ার রহমান। তিনি উপজেলার কৃষক লীগের সভাপতি। এ ছাড়াও মহব্বত আলীর ছেলে ছামিদুল ইসলাম, রহমতুল্লাহর ছেলে শাহার আলী, শাহার আলীর ছেলে টিপু সুলতান, গোলাম হোসেনের ছেলে আব্দুল খালেক, আহম্মদ আলীর ছেলে আক্তারুজ্জামান, দফের আলীর ছেলে মান্নান ওরফে মানা ও আজিত বক্সের ছেলে জিল্লুর রহমান।

নিহত ব্যক্তি হলেন, ধলা গ্রামের আক্কাস আলীর ছেলে এনামুল হক নইলো। মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ২৯ জুলাই সন্ধ্যায় এনামুল হক নইলোকে পূর্ব শত্রুতার জেরে স্থানীয় নওপাড়া নবীনপুর ঈদগাহ ময়দানের পাশে হত্যা করে আতিয়ারসহ নয়জন। পরে এ ঘটনায় নিহতের ভাই আজমাইন হোসেন টুটুল বাদী হয়ে গাংনী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

এদিকে পরবর্তী সময়ে মামলাটি সিআইডিতে স্থানান্তর করা হয়। পরে সিআইডির উপ-পরিদর্শক হাসান ইমাম মামলার তদন্ত শেষে আটজনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট প্রদান করেন। মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি (পিপি) পল্লব ভট্টাচার্য জানান, বাদী-বিবাদী পক্ষের আইনজীবীর যুক্তিতর্ক ও ১৫ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে মঙ্গলবার দুপুরে এর রায় দেন আদালত। এ সময় ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

হত্যা মামলায় কৃষক লীগ নেতাসহ ৮ জনের যাবজ্জীবন

আপডেট সময় ০৩:৩০:০৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার ধলা গ্রামের কৃষক এনামুল হক ওরফে নইলো হত্যা মামলায় কৃষক লীগের নেতাসহ আটজনের প্রত্যেকের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার (২৮ ফেরবুয়ারি) দুপুরে মেহেরপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিজ্ঞ বিচারক শহিদুল্লাহ এ রায় দেন। এ সময় আসামিরা উপস্থিত ছিলেন। মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি (পিপি) পল্লব ভট্টাচার্য ও আসামি পক্ষের কৌঁসুলি ছিলেন একেএম শফিকুল আলম।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, ধলা গ্রামের ছইফতুল্লাহর ছেলে আতিয়ার রহমান। তিনি উপজেলার কৃষক লীগের সভাপতি। এ ছাড়াও মহব্বত আলীর ছেলে ছামিদুল ইসলাম, রহমতুল্লাহর ছেলে শাহার আলী, শাহার আলীর ছেলে টিপু সুলতান, গোলাম হোসেনের ছেলে আব্দুল খালেক, আহম্মদ আলীর ছেলে আক্তারুজ্জামান, দফের আলীর ছেলে মান্নান ওরফে মানা ও আজিত বক্সের ছেলে জিল্লুর রহমান।

নিহত ব্যক্তি হলেন, ধলা গ্রামের আক্কাস আলীর ছেলে এনামুল হক নইলো। মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ২৯ জুলাই সন্ধ্যায় এনামুল হক নইলোকে পূর্ব শত্রুতার জেরে স্থানীয় নওপাড়া নবীনপুর ঈদগাহ ময়দানের পাশে হত্যা করে আতিয়ারসহ নয়জন। পরে এ ঘটনায় নিহতের ভাই আজমাইন হোসেন টুটুল বাদী হয়ে গাংনী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

এদিকে পরবর্তী সময়ে মামলাটি সিআইডিতে স্থানান্তর করা হয়। পরে সিআইডির উপ-পরিদর্শক হাসান ইমাম মামলার তদন্ত শেষে আটজনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট প্রদান করেন। মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি (পিপি) পল্লব ভট্টাচার্য জানান, বাদী-বিবাদী পক্ষের আইনজীবীর যুক্তিতর্ক ও ১৫ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে মঙ্গলবার দুপুরে এর রায় দেন আদালত। এ সময় ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।