০৬:২৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪

১ বছরে শতভাগ মামলা নিষ্পত্তি হয়েছে : প্রধান বিচারপতি

নিজস্ব সংবাদ দাতা
  • আপডেট সময় ১২:৫৬:৩৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ৪ মার্চ ২০২৩
  • / ৮১ বার পড়া হয়েছে

সারাদেশে গত এক বছরে শতভাগ মামলা নিষ্পত্তি হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী। শনিবার (৪ মার্চ) সকাল সাড়ে ৯টায় চুয়াডাঙ্গা জেলা জজ আদালত চত্বরে বিচারপ্রার্থীদের বিশ্রামাগার ন্যায়কুঞ্জের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের পর সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

প্রধান বিচারপতি বলেন, বিচারকদের পুরাতন মামলাগুলো দ্রুত নিষ্পত্তি করার জন্য বলা হয়েছে। সারাদেশে এই প্রথম গত ১ বছরে শতভাগ মামলা নিষ্পত্তি হয়েছে। বিচারকরা অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। কিন্তু কম লোকবলের কারণে মামলার জট নিষ্পত্তি করা সম্ভব নয়। আরও লোকবল দেওয়ার জন্য আমরা চেষ্টা করব।

তিনি বলেন, দেশের প্রতিটি আদালত চত্বরে ন্যায়কুঞ্জ তৈরি করা হবে। ন্যায়কুঞ্জ তৈরি করতে ৩৫ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে সরকার। ন্যায়কুঞ্জে নারীসহ সব বিচারপ্রার্থী বিশ্রাম নেবেন। জনগণের কথা ভেবেই এই ন্যায়কুঞ্জ তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।প্রধান বিচারপতি আদালত চত্বরে বৃক্ষরোপণ করেন। পরে জেলা জজ আদালতের সম্মলেন কক্ষে বিচারকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। পরে জেলা আইনজীবী সমিতির সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী।

এ সময় বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের বিচারপতি আবু জাফর সিদ্দিকী, হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলম, চুয়াডাঙ্গা জেলা ও দায়রা জজ জিয়া হায়দার, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান, পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল মামুন, চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট লুৎফুর রহমান শিশির, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি সেলিম উদ্দিন খান, সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বি সাগরসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

১ বছরে শতভাগ মামলা নিষ্পত্তি হয়েছে : প্রধান বিচারপতি

আপডেট সময় ১২:৫৬:৩৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ৪ মার্চ ২০২৩

সারাদেশে গত এক বছরে শতভাগ মামলা নিষ্পত্তি হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী। শনিবার (৪ মার্চ) সকাল সাড়ে ৯টায় চুয়াডাঙ্গা জেলা জজ আদালত চত্বরে বিচারপ্রার্থীদের বিশ্রামাগার ন্যায়কুঞ্জের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের পর সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

প্রধান বিচারপতি বলেন, বিচারকদের পুরাতন মামলাগুলো দ্রুত নিষ্পত্তি করার জন্য বলা হয়েছে। সারাদেশে এই প্রথম গত ১ বছরে শতভাগ মামলা নিষ্পত্তি হয়েছে। বিচারকরা অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। কিন্তু কম লোকবলের কারণে মামলার জট নিষ্পত্তি করা সম্ভব নয়। আরও লোকবল দেওয়ার জন্য আমরা চেষ্টা করব।

তিনি বলেন, দেশের প্রতিটি আদালত চত্বরে ন্যায়কুঞ্জ তৈরি করা হবে। ন্যায়কুঞ্জ তৈরি করতে ৩৫ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে সরকার। ন্যায়কুঞ্জে নারীসহ সব বিচারপ্রার্থী বিশ্রাম নেবেন। জনগণের কথা ভেবেই এই ন্যায়কুঞ্জ তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।প্রধান বিচারপতি আদালত চত্বরে বৃক্ষরোপণ করেন। পরে জেলা জজ আদালতের সম্মলেন কক্ষে বিচারকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। পরে জেলা আইনজীবী সমিতির সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী।

এ সময় বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের বিচারপতি আবু জাফর সিদ্দিকী, হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলম, চুয়াডাঙ্গা জেলা ও দায়রা জজ জিয়া হায়দার, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম খান, পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল মামুন, চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট লুৎফুর রহমান শিশির, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি সেলিম উদ্দিন খান, সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বি সাগরসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।