০৩:২৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪

২ দিনের সফরে দিল্লী যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

মিজানুর রহমান খান
  • আপডেট সময় ০৭:৫৯:১৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪
  • / ২৪ বার পড়া হয়েছে

মিজানুর রহমান খান//

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দু’দিনের এক রাষ্ট্রীয় সফরে ভারতে যাচ্ছেন। ভারতের পক্ষ থেকে দ্বিপক্ষীয় এই সফরের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা ও যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। ২১-২২জুনের এই সফরে প্রধানমন্ত্রী হাসিনার প্রতিনিধি দলে কারা থাকবেন, সেই তালিকাও দিল্লির কাছে পাঠানো হয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ ছাড়াও অন্য যে মন্ত্রী বা মন্ত্রী পর্যায়ের সদস্যরা শেখ হাসিনার সঙ্গে দিল্লিতে আসছেন তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অ্যাম্বাসেডর-অ্যাট-লার্জ মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন, বাংলাদেশ সরকারের ডাক, টেলিকম ও তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম।

প্রতিনিধি দলের এই অবয়ব থেকে ধারণা করা হচ্ছে, এই দ্বিপক্ষীয় সফরে অর্থনীতি, বাণিজ্য, রেল, বিদ্যুৎ ও প্রতিরক্ষা খাতে দুই দেশের মধ্যে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ চুক্তি ও সমঝোতা সম্পাদিত হতে পারে।

এই তালিকায় স্থান পেয়েছেন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর আবদুর রউফ তালুকদার,  বাংলাদেশের ইকোনমিক রিলেশনস (অর্থনৈতিক সম্পর্ক) বিভাগের সচিব মহ. শাহরিয়ার কাদের সিদ্দিকিও এই সফরের প্রতিনিধি দলে থাকছেন। বিশিষ্ট ব্যক্তিত’¡ হিসেবে এবারের দিল্লিযাত্রায় প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফরউল্লাহ। এছাড়া প্রতিবারের মতোই বাংলাদেশের সিনিয়র সম্পাদকদের একটি দলও প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে দিল্লিতে যাচ্ছেন। সিনিয়র সাংবাদিকদের মধ্যে রয়েছেন একুশে টেলিভিশনের সিইও পীযূষ বন্দোপাধ্যায়, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল দত্তসহ আরও ৭ জন ।

মাত্র দিন দশেক আগেই (৯ জুন) ভারতের প্রধানমন্ত্রী পদে টানা তৃতীয়বারের মতো শপথ নিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি। মোদি সরকারের এই তৃতীয় মেয়াদে প্রথম যে বিদেশি অতিথি রাষ্ট্রীয় সফরে দিল্লিতে পদার্পণ করছেন, তিনি শেখ হাসিনা। গত মাসে ভারতের নির্বাচনের মাঝপথেই ঢাকায় গিয়ে তাকে এই সফরের আমন্ত্রণ জানিয়ে এসেছিলেন ভারতের পররাষ্ট্র সচিব বিনয় মোহন কোয়াটরা।

এর আগে নরেন্দ্র মোদির শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দিতেও দিন কয়েক আগেই দিল্লি থেকে ঘুরে গেছেন শেখ হাসিনা, তখন প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে বৈঠকও করেছেন তিনি। ফলে একই মাসের মধ্যে এ নিয়ে দ্বিতীয়বার দিল্লিতে আসছেন প্রধানমন্ত্রী হাসিনা। যা বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কের এই সোনালী যুগে অস্বাভাবিক না হলেও নজিরবিহিন ঘটনা।

 

 

ট্যাগস

নিউজটি শেয়ার করুন

২ দিনের সফরে দিল্লী যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

আপডেট সময় ০৭:৫৯:১৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪

মিজানুর রহমান খান//

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দু’দিনের এক রাষ্ট্রীয় সফরে ভারতে যাচ্ছেন। ভারতের পক্ষ থেকে দ্বিপক্ষীয় এই সফরের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা ও যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। ২১-২২জুনের এই সফরে প্রধানমন্ত্রী হাসিনার প্রতিনিধি দলে কারা থাকবেন, সেই তালিকাও দিল্লির কাছে পাঠানো হয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ ছাড়াও অন্য যে মন্ত্রী বা মন্ত্রী পর্যায়ের সদস্যরা শেখ হাসিনার সঙ্গে দিল্লিতে আসছেন তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অ্যাম্বাসেডর-অ্যাট-লার্জ মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন, বাংলাদেশ সরকারের ডাক, টেলিকম ও তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম।

প্রতিনিধি দলের এই অবয়ব থেকে ধারণা করা হচ্ছে, এই দ্বিপক্ষীয় সফরে অর্থনীতি, বাণিজ্য, রেল, বিদ্যুৎ ও প্রতিরক্ষা খাতে দুই দেশের মধ্যে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ চুক্তি ও সমঝোতা সম্পাদিত হতে পারে।

এই তালিকায় স্থান পেয়েছেন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর আবদুর রউফ তালুকদার,  বাংলাদেশের ইকোনমিক রিলেশনস (অর্থনৈতিক সম্পর্ক) বিভাগের সচিব মহ. শাহরিয়ার কাদের সিদ্দিকিও এই সফরের প্রতিনিধি দলে থাকছেন। বিশিষ্ট ব্যক্তিত’¡ হিসেবে এবারের দিল্লিযাত্রায় প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফরউল্লাহ। এছাড়া প্রতিবারের মতোই বাংলাদেশের সিনিয়র সম্পাদকদের একটি দলও প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে দিল্লিতে যাচ্ছেন। সিনিয়র সাংবাদিকদের মধ্যে রয়েছেন একুশে টেলিভিশনের সিইও পীযূষ বন্দোপাধ্যায়, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল দত্তসহ আরও ৭ জন ।

মাত্র দিন দশেক আগেই (৯ জুন) ভারতের প্রধানমন্ত্রী পদে টানা তৃতীয়বারের মতো শপথ নিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি। মোদি সরকারের এই তৃতীয় মেয়াদে প্রথম যে বিদেশি অতিথি রাষ্ট্রীয় সফরে দিল্লিতে পদার্পণ করছেন, তিনি শেখ হাসিনা। গত মাসে ভারতের নির্বাচনের মাঝপথেই ঢাকায় গিয়ে তাকে এই সফরের আমন্ত্রণ জানিয়ে এসেছিলেন ভারতের পররাষ্ট্র সচিব বিনয় মোহন কোয়াটরা।

এর আগে নরেন্দ্র মোদির শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দিতেও দিন কয়েক আগেই দিল্লি থেকে ঘুরে গেছেন শেখ হাসিনা, তখন প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে বৈঠকও করেছেন তিনি। ফলে একই মাসের মধ্যে এ নিয়ে দ্বিতীয়বার দিল্লিতে আসছেন প্রধানমন্ত্রী হাসিনা। যা বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কের এই সোনালী যুগে অস্বাভাবিক না হলেও নজিরবিহিন ঘটনা।